,

নবীগঞ্জে ১ জন স্বাস্থ্যকর্মী সহ ৬ জনের করোনা জয়

সলিল বরণ দাশ : নবীগঞ্জ উপজেলায় ১ জন স্বাস্থ্য কর্মী সহ ৫ জন ঢাকা-নারায়নগঞ্জ ফেরত শ্রমিক সহ ৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল গত ০২ মে।দীর্ঘ ২১ দিন পর ৬ জনই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গতকাল, ২১মে (বৃহস্পতিবার) বেলা ১২ টায় প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল থেকে তাদের আজ ছাড়পত্র দেওয়া হয় পড়ে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ও প্রত্যেককে ৫০০০ টাকা প্রদান করা হয়। এসময় হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.শামীমা আক্তার সহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। করোনাজয়ীরা হলেন উপজেলা বাউসা ইউনিয়নের বাউসা কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি গোপাল আচার্য্য (৩০), ১নং বড় ভাকৈর পশ্চিম ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের গার্মেন্টস কর্মী রুপেশ চন্দ্র দাশ (৩৪), একই ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামের কারখানা শ্রমিক রাসেল দাশ (২০), রাসেল মিয়া (৩০), সুজাত মিয়া (৩০) ও ৭নং করগাঁও ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের গার্মেন্টস কর্মী রাস মোহন দাশ (২০)। এ ব্যাপারে, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুস সামাদ বলেন, আমাদের একজন স্বাস্থ্য কর্মী সহ পাঁচজন ঢাকা-নারায়নগঞ্জ ফেরত শ্রমিকরা একদিনে আক্রান্ত হয় এবং সর্বশেষ নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এর মানে, তারা করেনা ভাইরাসের মতো একটি মরণব্যাধিকে জয়ী করে পুরোপুরি সুস্থ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল জানান, উপজেলাবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান। সব আক্রান্তরাই করোনার বিরুদ্ধে জয়ী হবেনই।
উল্লেখ্য, গত ০২ই মে শনিবার বাউসা ইউনিয়নের সিএইচসিপি ও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ফেরত ৫ জন শ্রমিকের রিপোর্টে তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হন। এর পর তাদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়ার ২১ দিন পর তারা সুস্থ হলে তাদেরকে সুস্থতার ছাড়পত্র দেওয়া হয়।


     এই বিভাগের আরো খবর